• Parabaas
    Parabaas : পরবাস : বাংলা ভাষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতি
  • পরবাস | সংখ্যা ৪০ | ফেব্রুয়ারি ২০০৮ | কবিতা
    Share
  • তিনটি কবিতা : উজ্জ্বল সিংহ

    আধার

    টুকরো টুকরো আলোধ্বনি একটি একটি করে
    সারারাত্রি জড়ো করি; ঘুম-জড়ানো ভোরে
    তারপর শিথিল মনে দেখি আলোচনা
    বিবশ, শিথিলতর ; শায়িতা রচনা ।

    দু-জন মহিলা নিয়ে কী করি এখন !
    ব্যর্থতার অন্য চিত্রে চিত্রিত পেখম
    আমার ময়ূরগুলি মুহূর্তে মোহিত
    ভাবি নাই ঘনঘটা এত সহ্যাতীত ।

    আলো তীব্র ধ্বনি তীক্ষণ উগ্র ছায়াছবি
    উদাসীন অন্তরাত্মা বহিরঙ্গ লোভী
    উচ্ছিষ্টে উত্সৃষ্ট কায়া অশুচি আকৃতি
    বিশ্বচক্রে প্রাণবন্ত কুসুমের বৃতি ।

    স্তূপীকৃত অক্ষরের বিচ্ছুরিত আলো
    আলোচনা-রচনাকে যে-রঙে রাঙালো
    হয়তো-বা আকাঙ্খার, না-ও হতে পারে ;
    ঊষালগ্নে পাপী হই, ঋষি একাধারে ।



    সপ্তাহ

    ১ম দিন আচমন ২য় দিন অভিবন্দনা-স্তবন ৩য় অক্ষসূত্র
    র্‌৪থ দিন তপশ্চর্যা ৫ম পুরশ্চরণ ষষ্ঠ আরত্রিক হরিধ্বনি সপ্তমে
    এছাড়া রইল কী প্রাতরাহ্নিক-মধ্যাহ্নসন্ধ্যা - সায়ংকৃত্য
              সর্বোপরি হে বিদ্যাবতী থাকল মুদ্রিকা
               থাকল মধুপর্ক
    আর (হারামির বাচ্চা) আতপচাল গায়ত্রীমন্ত্র



    আগুনপুরাণ

    চোখের জলের উষ্ণভাপে শূন্য হল মেঘ
    প্রাণান্তকর সংদাহে আজ রুদ্ধ গতিবেগ
    উপগ্রহের অনলশিলায় জ্বলন্ত পাগলামি
    সাত পৃথিবীর গর্ভবাসে জন্ম নিলাম আমি ।

    (পরবাস-৪০, ফেব্রুয়ারি, ২০০৮)

  • এই লেখাটি পুরোনো ফরম্যাটে দেখুন
  • মন্তব্য জমা দিন / Make a comment
  • (?)