About Parabaas Friends of Parabaas Place Your Ad Here Links The Parabaas Bookstore Book Reviews

New Additions in Rabindranath Section (Parabaas)
Twelve Novels by Rabindranath Tagore (Essay)


Two birds (Poem)






Uselessly (Poem)







Selections from Santiniketan (Lectures)








বর্ষা, রবীন্দ্রনাথ, ২২শে শ্রাবণ (প্রবন্ধ)





রবীন্দ্রসঙ্গীত--সুগত চট্টোপাধ্যায়






 
New Additions in Parabaas Translation
Book reviews/Memoir -
Chandrabati's Ramayan : A Book Review
In Praise of Annada
short stories -
 The Giver's Paradise (by Bibhutibhushan Bandyopadhyay)
 The Suitcase Switch (by Bibhutibhushan Bandyopadhyay)
 A Wild Flower (by Selina Hossain)
 We Will Meet Again (by Sirshendu Mukho
padhyay)
serialized novels -
 Ichhamoti (by Bibhutibhushan
Bandyopadhyay)
 Sati's Remains (by Sirshendu Mukho
padhyay)
 The Kheer Doll (byAbanindra
-nathTagore)
Poems -
Maybe a Love Poem,
Cry Bangladesh, Cry, Outcry



Satyajit Ray Section

New Additions in
Satyajit Section (Parabaas)
Essay -
- দৈববাণীর সুবর্ণজয়ন্তী (প্রবন্ধ)
Detective Novella -
Hullabaloo in Gosaipur (translation)
Essay/Memoir -
- দেখার রকমফের: ঋত্বিক ও সত্যজিৎ (প্রবন্ধ)
- That little drop of dew! (memoir by Shivani)

Shakti Chattopadhyay Section

New Additions in
Shakti Chattopadhyay Section (Parabaas)
Poems of Shakti Chattopadhyay:

Sorrowing for leaves,
I could go. But why would I?,
Slowly, steadily,
Say, you love,
Rain on Kolkata's chest, and
Kolkata, at dawn.
Thirty-eight years with Shakti (essay)



বুকের ভিতরে বুক, আর কিছু নয় (প্রবন্ধ)



Who is Abani, at whose house, and why is he even there? (essay)



Four poems:
Jarasandha, Fate, The Returned, and Abani, are you home?
শক্তি চট্টোপাধ্যায়-এর গ্রন্থপঞ্জী

Jibanananda Section

New Additions in
Jibanananda Section (Parabaas)
কবিতার অন্তরঙ্গ পাঠঃ জীবনানন্দের 'বেড়াল' (প্রবন্ধ)
  Understanding Jibanananda’s Different Poetic Sensibility (essay)
  The Scent of Sunlight- Poems of Jibanananda Das (tr. by Clinton Seely)

Buddhadeva Bose Section

New Additions in
Buddhadeva Bose Section (Parabaas)
Review of Books/Drama-
  বুদ্ধদেব বসুর চিঠি কনিষ্ঠা কন্যা রুমিকে, (সমালোচনা)
  ফিরে দেখা — বুদ্ধদেবের অনুবীক্ষণে রবীন্দ্র-রচনা , (সমালোচনা)
  নেপথ্য-নাটক, (সমালোচনা)
Essay/Memoir -
  Sweet this earthly dust, and  Return (memoir)
  ভ্রমণশিল্পী বুদ্ধদেব বসু (প্রবন্ধ)



উপন্যাস :


সাক্ষাৎকার :


কথার কথাঃ
Parabaas Archives:


ISSN 1563-8685  





পরবাস-৮০ সূচিপত্র



New additions to Shakti Chattopadhyay Section:

Six more poems of Shakti Chattopadhyay, translated by Nandini Gupta

Sorrowing for leaves (পাতার শোকে),

I could go. But why would I? (যেতে পারি, কিন্তু কেন যাবো?),

Slowly, steadily (ধীরে ধীরে যেভাবেই হোক),


Say, you love (বলো, ভালোবাসো),

Rain on Kolkata's chest (কলকাতার বুক পেতে বৃষ্টি), and

Kolkata, at dawn (কলকাতায়, ভোরে)






Thirty-Eight Years with Shakti (শক্তির সঙ্গে আটত্রিশ বছর)Bhaswati Ghosh translates from Samir Sengupta's book 'My friend, Shakti' (আমার বন্ধু শক্তি).





রবীন্দ্রনাথ বিভাগে নতুন সংযোজন:

রবীন্দ্রসঙ্গীত —
বৈশালী ফণী:
— তোমরা যা বল তাই বলো
— অমল ধবল পালে লেগেছে
— ছুটির বাঁশি বাজল যে ওই






সম্পাদকীয় চিঠিপত্র শিল্প-সাহিত্য সংবাদ লেখক পরিচিতি








গ্যালারি - — হৃদি কুন্ডু (ছবি)






জোজো আর আমি - — অনন্যা দাশ "রাতে আমার ঘরেই অন্য একটা খাটে শোয় সে। প্রথম মাঝরাতে দুঃস্বপ্ন দেখে চিৎকার করে উঠত। কতবার আলো জ্বালিয়ে ওকে ঘুম থেকে তুলে সান্ত্বনা দিয়েছি। তখন সে এমন ভাবে আমার দিকে চেয়ে দেখেছে যেন ওর দুঃস্বপ্ন দেখার সব দোষ আমার!, ..." (গল্প)



মিষ্টিমুখ - — পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় "মা বললেন, ‘তাছাড়া আমরা আছি জুতোর ভেতর, বোঝা যায় কখনো!’ তারপর বাবাকে বললেন, ‘হ্যাঁ গো, আমরা ঠিক কুসুম-সৌরভের বাবার জুতোতেই তো ঢুকেছি? ওদের মা-র আবার এই সরু হিল তোলা জুতো।’..." (গল্প)



চালক - — বিশ্বদীপ সেনশর্মা " আমার বুকের ভিতর হৃৎপিণ্ডটা ধকধক করে লাফাচ্ছে। গলা শুকিয়ে কাঠ। কোনরকমে বললাম, আমি.... আমি ফিরে এসেছিলাম।
লোকটির গলায় যেন সামান্য হাসির শব্দ শোনা গেল। ..." (গল্প)




সাইকেল - — পার্থ চৌধুরী (কবিতা)




টুনি - — হীরক সেনগুপ্ত "জোজি বলল, 'এনেছি।'
টুনির চোখ চকচকে, 'ঠিকাছে?'
'হুঁ।' জোজি ঘাড় নাড়ল।
আবার টুনি জিজ্ঞাসা করল, 'বুঝেছিস?' ..." (গল্প)





নেপথ্যে - — রঞ্জন ভট্টাচার্য "সমস্ত ঘটনার মধ্যে কিন্তু একজন আছেন — নেপথ্যে" — বললেন সুধীন্দ্রনাথ
"'নেপথ্যে' — মানে?" — জিজ্ঞেস করলো সৌজন্য। ..." (গল্প)





ভূমিপুত্র - — রূপসা দাশগুপ্ত "ছোট কোচিসে বলে উঠল--সেই যে রাজকন্যা ওলী তার গল্পটা বলো।
--কোন রাজকন্যা? ..." (গল্প)




ধারাবাহিক উপন্যাস
অন্তর্জাল (৪) — অঞ্জলি দাশ
"স্তব্ধ হয়ে বসে আছে কান্তা। নিজের হৃৎস্পন্দন নিজের কানেই আঘাত করছে। প্রায় ছাব্বিশ বছরের ওপার থেকে যেন তীক্ষ্ণ সিসের টুকরোর মতো কানে এসে লাগলো একটা দু’অক্ষরের শব্দ। আরএকটা আবছা ভয়ের ডানা ছায়া ফেললো ওর ওপর। ..." (ধারাবাহিক উপন্যাস)

প্রচ্ছদ | | | | | |



কালসন্ধ্যা (৬) — মিহির সেনগুপ্ত
"যাদবেরা যা কিছুই করুক, অর্থের বিনিময় ছাড়া করে না। অবশ্য এটা কোনো দোষের ব্যাপার নয়। ব্যাপারটা জাতিগত অভ্যেসের। কিন্তু আমার অবাক লাগে, কৃষ্ণ এবং অন্যান্য যাদব অভিজাতবর্গ যাঁরাই পাণ্ডব বা আমাদের পক্ষকে সৈন্য সাহায্য দিয়েছেন, তাঁরা মনে করেন ..." (ধারাবাহিক উপন্যাস; শেষ পর্ব)

প্রচ্ছদ | | | | | | | | |



কোথাও জীবন আছে (১৩) — শাম্ভবী ঘোষ
“অগত্যা ঋদ্ধিমানদাকেই ফোন করল। রাজপুত্রকে ধরা না গেলে মন্ত্রীপুত্রের শরণাপন্ন হওয়া ছাড়া উপায় কী! তাছাড়া, তিলোত্তমা আর ধৃতিদাদার ব্যাপারটা নিয়েও একটা কৌতুহল হচ্ছিল। ফোন অবশ্য বহুক্ষণ বেজে চলল। কেটেই যেত হয়তো, কিন্তু শেষমেশ ওপার থেকে খানিকটা যেন বিরস গলায় উত্তর এল। ..." (ধারাবাহিক উপন্যাস)

প্রচ্ছদ | | | | | | | | | | ১০ | ১১ | ১২ | ১৩ |



হারাধন টোটোওয়ালা (৯) — সাবর্ণি চক্রবর্তী
"দর্জির দোকান থেকে কাপড়জামা কিনে রাস্তায় বেরিয়ে ভৈরব ভীমকে অনেক কথা বলল। দ্যাখো ভীম, এখন তোমাকে কলকাতাতেই থাকতে হবে, গাঁয়ে তো আর ফিরতে পারবে না। চাকরিও পেয়ে গেছ, এখন বিয়েশাদি ..." (ধারাবাহিক উপন্যাস)

প্রচ্ছদ | | | | | | | | | |


রম্য-ইতিহাস (ধারাবাহিক)
মহাসিন্ধুর ওপার হতে (১২) — অমিতাভ প্রামাণিক
"নতুন এক রাজা শাসক হিসাবে কার্যভার গ্রহণ করেন ১১১৩ সালে। তিনি দ্বিতীয় সূর্যবর্মণ। তাঁর আমলেই তৈরি হয় পৃথিবীর সর্ববৃহৎ মন্দির এবং উপাসনাস্থল – অ্যাঙ্করবাট।
ভাট বা ওয়াট না লিখে যে বাট লিখলাম, তার কারণ ‘যখন পড়বে না মোর চরণচিহ্ন এই বাটে’-র বাট তথা চত্বর হচ্ছে এই বাট, সংস্কৃত তৎসম শব্দ। ..."


| | | | | | | | | ১০ | ১১ | ১২ |




যুগলবন্দীঃ কবিতা ও ছবি

সনেট - — দীপঙ্কর ঘোষ (ছবি)সমরেন্দ্র নারায়ণ রায় (কবিতা)







প্রবন্ধ, সমালোচনা, রম্যরচনা, স্মৃতিকথা, ...


পাণিনির টুকিটাকি দেবদত্ত জোয়ারদার
“পাণিনির ব্যাকরণ সহস্র-এক আরব্য রজনীর চেয়েও রোমাঞ্চকর। একটা ভাষার প্রকৃতিগত শৃঙ্খলা কী উপায়ে তিনি আবিষ্কার করলেন তা এক বিস্ময়কর অভিযাত্রা। আজকের আলোচনায় প্রাথমিক দ্বারোদ্‌ঘাটনের চেষ্টা করা হল মাত্র। পর্বান্তরে আরও বিচিত্র প্রসঙ্গে প্রবেশ করবার আশা রাখি।..” (প্রবন্ধ)


পঞ্চাশ-ষাটের হারিয়ে যাওয়া কোলকাতার চালচিত্র (৯) রঞ্জন রায়
" সিংহগ্রীব বন্ধুজীব অধর রাতুল,
খগরাজ পায় লাজ, নাসিকা অতুল।"
উঃ, কী কঠিন কঠিন খটোমটো শব্দ! ..." (ধারাবাহিক স্মৃতিকথা)

প্রচ্ছদ | ১ | ২ | ৩ | ৪ | ৫ | ৬ | ৭ | ৮ | ৯ | |




সব কিছু সিনেমায় (৮) — জয়দীপ মুখোপাধ্যায়
"কালিঘাটের চৌকো পটের বিচিত্র সম্ভার ছিল এই সোসাইটিতে। তখন মাথায় ঘুরছে, এই পটের ওপর একটা যদি ছবি করা যায়। এই পট দেখতে এসেই গগন ঠাকুরের আঁকা ছবিগুলো দেখেছিলাম, দেখেছিলাম অবনীন্দ্রনাথ, নন্দলাল বসু আর ... " (ধারাবাহিক স্মৃতিকথা)
১ | ২ | ৩ | ৪ | ৫ | ৬ | ৭ | ৮ | |



হেমেন্দ্রকুমার রায়ঃ এক পথিকৃতের কীর্তিকাহিনী
প্রদোষ ভট্টাচার্য্য
“এর পরেও কি আমরা একমত হ’ব যে বাংলা অ্যাডভেঞ্চার-কাহিনীর অন্যতম লেখক হিসেবে হেমেন্দ্রকুমার, তাঁর সতীর্থদের মতো, শুধুই ‘ঔপনিবেশিক শাসকদের ঔদ্ধত্য, নিঃসংকোচ অহমিকা … এত অনায়াসে আত্মস্থ করেছিলেন, [যে তা’ নিয়ে] লেখার পর লেখায় … সামান্য খটকাও দেখা যায় না’?..” (প্রবন্ধ)


বিদ্যাসাগর ও কোচবিহার (দ্বিশতবার্ষিকী শ্রদ্ধাঞ্জলি - ১)
দেবায়ন চৌধুরী
"আহা, বিধবা বিবাহ যদি
থাকতো বারণ
হায়, আমার তাহলে আর
হতো না জনম!..."
(প্রবন্ধ)





এক আধুনিক মনন: বিদ্যাসাগরের ‘বাল্যবিবাহের দোষ’ প্রবন্ধের নিবিড় পাঠ (দ্বিশতবার্ষিকী শ্রদ্ধাঞ্জলি - ২)
সাগরিকা ঘোষ
"আমাদের দেশে বিয়ে হয়, স্বামী-স্ত্রী নিয়ম মেনে সংসারও করে; কিন্তু বিয়ের যে মূল বিষয় অর্থাৎ প্রেম, কেবল সেটিই থাকে অনুপস্থিত। এর জন্য বিদ্যাসাগর দায়ী করেছেন আমাদের বিবাহ পদ্ধতিকে—..." (প্রবন্ধ)




রাশিদা আঙ্গারেওয়ালি
শুভময় রায়
"রাশিদ জাহাঁ উর্দু সাহিত্যে পথিকৃৎ এক লেখিকা যিনি সাহসের সঙ্গে এবং জোরগলায় সমাজে মহিলাদের দুর্দশার কথা ব্যক্ত করেছিলেন। পুরনো অন্ধ বিশ্বাসকে আক্রমণ করেছিলেন তিনি। তাঁর পিতা শেখ আবদুল্লা আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে মহিলা কলেজটি .." (প্রবন্ধ)




'দূরপন্থচারী’ কবি সুচেতা মিত্র
শম্পা রায়
এই মরমি ভাব তাঁর কবিতাকে যেমন এক স্নিগ্ধ নিরভিমান মর্যাদা দিয়েছে, তেমনি গভীর আত্মখননময়, আবেগার্ত কবিতার রচয়িতা রূপে সুচেতা মিত্র হয়ে উঠেছেন রোমান্টিকতার এক আধুনিক রূপকার।... (প্রবন্ধ)



রলাঁ বার্তের তত্ত্ব, দর্শন এবং হেঁয়ালি — অথবা তাঁর জীবনী
অংকুর সাহা
"যে মানুষটা দেশে বিদেশে এমন বিখ্যাত ও জনপ্রিয়, সেই মানুষটা আসলে কী? প্রশ্নটার উত্তর কিন্তু সহজ নয়। কোন কাজের কাজী তিনি, কোন বিষয়ের বিশেষজ্ঞ? উত্তরগুলো একাধিক, বিচিত্র এবং পরস্পরবিরোধী। তবুও চেষ্টা করে দেখা যাক। ..." (প্রবন্ধ)



জীবন যখন কাব্য ছিল—মধ্য কোলকাতাঃ ১৯৫৪র আশেপাশে
নিবেদিতা দত্ত
"সন্তোষ মিত্র স্কোয়ারের উল্টোদিকে মুচিপাড়া থানা। থানার ওসি-র ছেলে পার্কে খেলতে আসে। তার সাথেই পৌঁছে যাওয়া থানার ভিতর। নীচে কয়েদখানা। দু-চার জন কয়েদী তো থাকতই সব সময়। ..." (রম্যরচনা)



নৈঃশব্দের নীচে
স্বপন ভট্টাচার্য
দত্তাত্রেয় দত্তর সনেট সংগ্রহের নিবিড় পাঠ (গ্রন্থ সমালোচনা)





শরৎচন্দ্র বসু: একটি মূল্যায়ন
রবিন পাল
প্রভাস চন্দ্র রায়-এর The Mind And Work of Sarat Chandra Bose বইটির সমালোচনা (গ্রন্থ সমালোচনা)






       


গ্রন্থ-সমালোচনা —ভবভূতি ভট্টাচার্য




বাজার করার হাজার সুলুক
শ্রীকুমার চট্টোপাধ্যায়
রজতেন্দ্র মুখোপাধ্যায়ের রোববারের বাজার বইটির আলোচনা (গ্রন্থ সমালোচনা)







কবিতা

কাদম্বরী দেবী - দেবারতি মিত্র

আরোগ্য - চিরন্তন কুন্ডু

তিনটি কবিতা
- অনুষ্টুপ শেঠ

তিনটি কবিতা
- সুগত মুখোপাধ্যায়

তিনটি কবিতা - দত্তাত্রেয় দত্ত

দু'টি কবিতা - সিক্তা দাস

ফেরা - অরণি বসু

পাঁচটি কবিতা - ‘গুলজার’ অনুবাদঃ ঝর্না বিশ্বাস

ডিভাইন ভিলানেল - নিরুপম চক্রবর্তী

অদৃশ্য দেহ - এ. কে. রামানুজন অনুবাদঃ সুপূর্ণা সিংহ

মেঘদূত - দিলীপ মাশ্চরক

দু'টি কবিতা - আজহার উদ্দিন সাহাজী

কুয়াশা যাপন #১, #২ - সুবীর বোস

দেশকাল - কালীকৃষ্ণ গুহ

একজন শবরের মৃত্যু - অমিত মণ্ডল


গল্প

অদৃশ্যা - দিবাকর ভট্টাচার্য "মাঝরাতে শোওয়ার ঘরের অল্প আলোয় নিজের প্রায় সম্পূর্ণ অনাবৃত শরীরের সামনেটা তাড়াতাড়ি করে যতটা সম্ভব চোখ বুলিয়ে নিয়ে বেশ আশ্চর্য হয়েই উত্তর দিয়েছিলো জ্যোতির্ময়ী ... ”




লালকমল নীলকমল - সিদ্ধার্থ মুখোপাধ্যায় "মালবিকার মুখে আলো ফুটল। হাততালি দিয়ে বলল, 'জানো, ছোটবেলায় আমাদের পাড়ায় একজন পাখিধরা আসত। সে একটা লম্বা লাঠির মাথায় আঠা লাগিয়ে গাছ থেকে পাখি পেড়ে আনত। কী যেন নাম ছিল লোকটার... আতিক না বাতিক কী যেন...'”




সাঁকো - স্বর্ভানু সান্যাল "রুহু এই সুযোগের অপেক্ষাতেই ছিল। চট করে গতি বাড়িয়ে চলে এল ঠিক আমার পেছনে। ওর নিঃশ্বাস হলকার মত আমার ঘাড়ে পড়ছে। বেতটা ভাল করে মুঠো করে ধরে আমার পিঠে বসিয়ে দিল। নিখুঁত হাতের কাজ। ...




স্যার-মর্ম - রুচিরা "বলেই অটোর স্পীড বাড়িয়ে দিয়ে বড় রাস্তা ছেড়ে এক প্রচণ্ড সরু গলিতে ঢুকে পড়ল সে। সেটা নাকি দুর্ধর্ষ এক শর্টকাট। দুদিকে সারি দিয়ে নানা ধরনের দোকান। রাস্তার এক ধারে কীসব পাইপ বসছে, ..."




ডিসেম্বর - অনিরুদ্ধ চক্রবর্তী "ও বলে, আমি কল্পনা করতে পারি না। তুমি যা তোমাকে আমি তাই দেখি। দেখি শুনি, একা-একা কথা বলি। তার মধ্যে নদী নেই, সূর্যাস্ত নেই, নৌকা নেই। মাটির দোতলাবাড়ির পিছনে আমাদের ..."




কিউপিড মাছের দিন
অচিন্ত্য দাসের দু'টি গল্পঃ "চেনাশোনা কয়েকজন দূরদেশে বেড়াতে যাচ্ছিল, আমি প্রত্যয়কে ফোনে জিগেস করলাম – যাব? ও দায়সারা উত্তর দিল “হ্যাঁ, ঘুরে এসো”। মনে মনে আশা করেছিলাম ও বলবে – “কবে? চলো আমিও যাব।” ..."




কৃপালির বাস - ফাল্গুনী ঘোষ "সকাল বেলায় বাড়ির সামনে এক বাস ভর্তি লোক দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে তার বাড়ি দেখবে, এটা তারামণির দাদার পছন্দ নয়। ফুলের গন্ধের বদলে পেট্রলের গন্ধ ভেসে আসে এও কারণ। গ্রামের মানুষজন নিজেদের ভিটেমাটি... "



দিশি আম অথবা নিছক বুর্জোয়ার গল্প
অতনু দে - " ডিং ডং করে কলিং-বেলটা বেজে উঠল।
মাস্কটা পরে দরজা খুলতে কয়েক সেকেন্ড বেশি লাগল রাজেনবাবুর—তার মধ্যেই আরেকবার বেলটা বেজে উঠল। ঈষৎ বিরক্ত হলেন রাজেনবাবু। ..."





ডলফিনরা ফিরে এসেছিল - প্রতাপ বোস "একটা মৃদু হাসি খেলে গেল চিত্রলেখাদেবীর ঠোঁটে। হাতের তালুটা একবার ভালো করে দেখলেন। তারপর একবার উঠে হাত পা একটু ছড়িয়ে নিয়ে আবার বসে পড়লেন তাঁর বহু দিনের পুরনো ডায়েরিটা নিয়ে। ..."



গৌর দাস - হীরক সেনগুপ্ত "গৌর দাস। অতীত ফুটবলার। চওড়া কাঠামো। 'বকুল-মুকুলের' গ্রুপ 'ডি'। বয়স আটান্ন। ব্যাঙ্কে আসে বৃহস্পতিবার দেখে। ভিড় কম। ..."





নারী বৃক্ষ - লুনা রাহনুমা "—সন্ধ্যায়! মনটা লাফিয়ে উঠে বান্ধবীর কথা শুনে। কিন্তু সঙ্গে সঙ্গেই মনে পড়ল আজ বৃহস্পতিবার। অফিসে কর্মচারীদের সাপ্তাহিক বেতন দিয়ে সুশান্ত বাড়ি ফিরতে অনেকটা রাত হয়ে যায়। খুব টায়ার্ড থাকে। কোথাও যেতে চায় না। ..."



যে যেখানে - — অতনু দত্ত "বিছানা ছেড়ে, হাতমুখ ধুয়ে দু কাপ চা বানিয়ে সরমাকে ডেকে দিয়ে নিজেরটা নিয়ে ব্যালকনির আরামচেয়ারটায় এসে বসেন অনাদিবাবু। সামনে সুনসান রাস্তা। চায়ের কাপে চুমুক দিতেই মনটা মুহূর্তে পৌঁছে যায় কলকাতায়। ... "





খোয়া পারিজাত - দিলশাদ চৌধুরী "আজ বারবার মায়ের কথাই মনে হচ্ছে তার। প্রায় পনেরো দিন হলো মা হাসপাতালে। ডাক্তারের মতে তার শরীরের ভেতরের কোন অর্গানই ঠিকমতো কাজ করছেনা। মায়ের রোগ আজকের নয়, বিভিন্ন ধরনের রোগ মায়ের শরীরে বহু আগে থেকেই দানা বাঁধছিল। কিন্ত মাকে..”



খুচরো - আর্জব দে “খুচরো দিন। ভাঙাতে পারব না।” পাশ দিয়ে ট্রাম চলে যাচ্ছে। এবার বাস ছাড়বে। ট্রামের ঘন্টির একটানা ছন্দ আর বেসুরো ঘড়ঘড়ানিতে অস্পষ্ট হয়ে আসে অতীনের শব্দ, “এই নিন।”



একটি নিখুঁত হত্যা - পরমার্থ বন্দ্যোপাধ্যায় "ছোটবেলা থেকেই, রহস্যর গন্ধ পেলেই নাওয়া খাওয়া ভুলে যেতেন অধীর। অ্যাডগার অ্যালান পো, কোনান ডয়েল, আগাথা ক্রিস্টি থেকে শরদিন্দু, সত্যজিৎ, নীহাররঞ্জন, হেমেন্দ্রকুমার রায়,...”





শেষ থেকে শুরু - রূপা মণ্ডল "স্টেশনে ট্রেন থেকে নেমে বীরেন্দ্র পরিচিত কাউকে দেখতে পেলেন না। অবশ্য কাউকে তো আর খবর দিয়ে আসছেন না। তাছাড়া কেই বা তাঁর খোঁজ রাখে? বাড়িতে তো রাতদিন বউমার মুখঝামটা ..”



অকল্যাণ - সাত্যকি সেনশর্মা "ফটোটা দেখল কল্যাণ। এক ভদ্রমহিলার ছবি। কল্যাণেরই মত বয়স হবে বা তার চেয়ে একটু ছোট। বেশ সম্ভ্রান্ত চেহারা। সাজগোজ ভাল। সুন্দরী নয়, কিন্তু একটা ব্যক্তিত্ব আছে। বেশ ফর্সা। বয়কাট চুল। ..”



সেই অজ্ঞাত পরম - নন্দিতা মিশ্র চক্রবর্তী "এক শীতের কুয়াশা-মাখা ভোরে, ঘুম ভেঙে বাড়ির বারান্দায় দাঁড়িয়ে, নিচের দিকে আমার চোখ আটকে যায়। ওখানে তাকিয়ে দেখতে পাই, সামনের বকুল গাছটার নিচে একটা বাচ্চা মেয়ে বসে আছে। প্রচণ্ড ঠান্ডায় ওর গায়ে কোনও গরম জামা নেই। মেয়েটা ওখানে …”





কোয়ারাণ্টিন - রাজিন্দর সিং বেদী
উর্দু সাহিত্যের প্রথিতযশা ঔপন্যাসিক-গল্পকার রাজিন্দর সিং বেদীর (১৯১৫ - ১৯৮৪) ‘কোয়ারাণ্টিন’ গল্পটি ৮০ বছর আগে লেখা। গল্পের প্রেক্ষাপট ১৮৯৬-এর প্লেগ এবং সংক্রামিতদের রোগান্তরণে রাখার তদানীন্তন আশ্রয়স্থলগুলি।
মূল উর্দু থেকে অনুবাদ শুভময় রায়

দিল্লি ভ্রমণ - রাশিদ জাহাঁ
১৯৩২ সালে লেখা 'দিল্লি ভ্রমণ' গল্পটিকে দৃষ্টান্ত হিসেবে ব্যবহার করে শুভময় রায় এই সংখ্যাতেই উর্দু সাহিত্যে এই পথিকৃৎ লেখিকা রাশিদ জাহাঁর (১৯০২-১৯৫২) নির্ভীক জীবন ও সাহসী সাহিত্যের আলোচনা করেছেন
মূল উর্দু থেকে অনুবাদ শুভময় রায়




প্রতীক্ষা - সুদীপ সরকার “এইসব তীব্র শ্লেষাত্মক বাক্যবাণ আজকাল আমাকে আর বিদ্ধ করে না। বারো তেরো বছরের দাম্পত্য জীবন পে্রিয়ে আসা সব পুরুষমানুষই বোধহয় এরকম স্থিতধী হয়ে ওঠে। স্ত্রীর নিরন্তর অভিযোগ, সর্বত্র ত্রুটি অন্বেষণ আর সময় বিশেষে …”




আফিম ফুল - উত্তম বিশ্বাস “আজ নিজে থেকেই পিঁড়িটা টেনে নিয়ে বসেছে রতন। একগাদা পড়াশুনা করে বাড়িতে বেকার বসে আছে রতন। দেশের আর দশটা ছেলে যেমন বেকার বসে থাকে, সেও তেমনি বসে আছে। উচ্চশিক্ষিত ছেলে, অথচ গ্রামের কেউই ওকে দুচক্ষে দেখতে পারে না। …”





চটি - মলয় সরকার “গরীবের সংসারে এইটুকই আনন্দ। একমাত্র মেয়ে। মেয়ের মুখের হাসি যাতে এতটুকুও আঘাত না পায়, স্বামী স্ত্রীতে মিলে তাই চেষ্টা করে। মেয়েরও এখনও সাংসারিক জ্বালাযন্ত্রণা বোঝার বয়স হয় নি। সে আপন বিশাল সাম্রাজ্য নিয়ে …”





সুলতা-রা - শিপ্রা চট্টোপাধ্যায় “সুলতার চোখ এক সমুদ্র জলে ভাসে, অস্পষ্ট আলোয় ওভারব্রিজে যেন বিরিঞ্চিকে দেখা যাচ্ছে। সে এখন সুলতার শরীর ছাড়িয়ে দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতম উদ্দেশে এ পৃথিবীর কোন এক নামগোত্রহীন স্টেশনে …”




ভ্রমণকাহিনি, প্রকৃতি, বাকিসব

বরফের নীচে আগুন—আইসল্যান্ড - ছন্দা চট্টোপাধ্যায় বিউট্রা
"আইসল্যান্ডের ভাষাটা পুরনো জার্মান থেকে জন্মেছে। কয়েকটা পুরনো অক্ষরও রয়ে গেছে যেগুলোর উচ্চারণ বেশ কঠিন। যেমন ‘ll’ ইংরাজির মতো ‘ল’ উচ্চারণ হয় না, স্প্যানিশের মতো ‘য়’ও নয়। তালুতে টক্কর দিয়ে..."


সাময়িক স্বর্গবাস - রাহুল মজুমদার
"আমাদের জন্যই যেন অপেক্ষা করছিল — সপার্ষদ কাঞ্চনজঙ্ঘা আর এভারেস্ট সোনালী পোশাক চড়িয়ে নিল এবার। একটু একটু করে সমস্ত চরাচর সেই সোনা মেখে নিল। বহুবার দেখা এই স্বর্গীয় দৃশ্য আর একবার স্বর্গদর্শন ..."



উগান্ডার জলে-জঙ্গলে - চম্পাকলি আইয়ুব
"‘উগান্ডার জঙ্গলে গিয়ে শিম্পাঞ্জি আর গরিলা দেখতে চাও?’ অমিতের এই প্রশ্নে আমরা স্বামী-স্ত্রী দ্বিধান্বিত দৃষ্টিতে পরস্পরের দিকে চাইলাম। দেশভ্রমণে তো আমরা সদা-উৎসাহী কিন্তু সদ্য বরিষ্ঠ-নাগরিক হওয়া আমাদের জন্য ..."



নাগাল্যান্ডে হর্নবিল উৎসব - আদিত্য পাল
"‘হর্নবিল উৎসবের আরেকটা আকর্ষণ হ’ল পশ্চিমী গানের উৎসব ও প্রতিযোগিতা। ‘রক’ ফেস্টিভাল। কিন্তু সেই উৎসব ‘কিসামো’তে হয় না। সেই জায়গাটি কোহিমার অন্য প্রান্তে। প্রতিযোগিতা শুরু হয় ..."


বাঙাল পুনশ্চ মাসাইমারা - সুনন্দন চক্রবর্তী
"বাঙালরা, আপনারা জানেন হয়তো, আনপ্রেডিক্টেবল। পাশের বাড়ির মেসোমশাই যখন বলেন ‘মাইয়াটারে আবার যদি কলেজ থিক্যা বাড়ি আইবার পথে আইসক্রিম খাওনের তরে লইয়া গেসস্, দাও দিয়া হাইল্যা ফেলামু’, গোছের হাঁক পাড়েন ..."


parabaas@parabaas.com
© 1997 - 2020 Parabaas Inc. All rights reserved.


সম্পূর্ণ সূচি
Complete Archive


Order
2020 Sharodiyas!




Travel Cube



India Tour Packages




New Arrivals!



New Arrivals



Bengali Little Magazines!



Bay Area Bangla School



Nabaneeta Dev Sen
Order



New Arrivals



Parabaas Bookstore


Site Search Site Search

(Courtesy: Jrank.org )


New Arrivals!



Magazines


রবীন্দ্র-রচনাবলী



Children's Books


Join Friends of Parabaas
Support students



Books in English





Poetry




Reference books



Books in Hindi