• Parabaas
    Parabaas : পরবাস : বাংলা ভাষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতি
  • পরবাস | Shakti Chattopadhyay | কবিতা
    Share
  • বাড়িতে অবনী : Dattatreya Dutt


    মেঘ ছিঁড়ে যায়, কুয়াশা জড়ায় রাতে
    দুহাতে আঁধার অলিগলি বেড়ে ধরে
    হাওয়া ভাপ ছাড়ে, আলোথামে ম্লান বাতি
    দেয়ালের পটে জানালার চোখ নেভে।
    সদর দোরে কে প্রমত্ত কড়া নাড়ে
    চাপা স্বরে ডাকে: অবনী— ! বাড়ি আছো?

    ফাঁপা ভয়ে ভাবি কলম কামড়ে দাঁতে
    ‘অবনী এখানে থাকে না’ বলি কী করে?
    চিনিনা হয়তো— অশরীরী কোনো সাথী?
    আমিই অবনী নই তো? সে-কথা ভেবে
    নাড়ী দ্রুত চলে, রোঁয়া খাড়া হয় ঘাড়ে,
    যতবারই শুনি: অবনী— ! বাড়ি আছো?

    অবনীর নাম কে লিখেছে দরজাতে
    চুন-আঙুলেতে আঁকাবাঁকা অক্ষরে?
    ভেবেছে কি আমি অবনী? দু-কান পাতি:
    ও কি ডাব হাতে নিশি-ডেকে টেনে নেবে
    অবনীআমাকে? হিম কেঁপে ওঠে হাড়ে
    উচাটন ডাকে: অবনী— ! বাড়ি আছো?

    অবনী কখনো ছিলো কি এ-ঠিকানাতে?
    এখানে তো মেঘ গরুর মতন চরে !
    সে এখানে কই? দম চেপে সারারাতই
    যদি বসে থাকি, ভয়-পাওয়া বেহিসেবে
    যদি সাড়া দিই, তবু ও একনাগাড়ে
    ডেকে চলবে কি: অবনী— ! বাড়ি আছো?

    নাকাড়া পেটায় আহ্বান পাঁজরাতে,
    অবশ অবনী চেতনার অন্দরে
    জেগে ভাবে বুঝি খুলে যাবে রাতারাতি
    কবিতাফটক। যত চায় সাড়া দেবে,
    স্বর বেধে যায়; হতাশ কলম ছেড়ে
    শুধু শুনে চলে: অবনী— ! বাড়ি আছো?

    কোব্লা এস্ত্রাম্পা বা Coblas Estrampas হল “বিচ্ছিন্ন স্তবক”, যেটা এই কবিতায় ব্যবহার করা হয়েছে। এতে একই মিলের ছক প্রত্যেক স্তবকে পুনরাবৃত্ত হয়: abcdef; abcdef ... এইভাবে। মধ্যযুগীয় ত্রুবাদুরদের পুনরাবৃত্তিমূলক বক্তব্যের কাব্যপ্রথায় এর স্তবকগুলো আগে-পরে করে গাইলে, কিম্বা গাইবার সময়ে এক-আধটাকে বাদ দিয়ে দিলে কোনোই সমস্যা হতো না। কারণ মিলের দিক দিয়ে এরা “বিচ্ছিন্ন”।

    Parabaas, July, 2021

    Illustrated by Priyansu Banerjee. Still in his teens, Priyansu just graduated into Grade XI. He is based in Uttarpara, W. Bengal, India.
  • এই লেখাটি পুরোনো ফরম্যাটে দেখুন
  • মন্তব্য জমা দিন / Make a comment
  • (?)