• Parabaas
    Parabaas : পরবাস : বাংলা ভাষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতি
  • পরবাস | সংখ্যা ৮৯ | জানুয়ারি ২০২৩ | কবিতা
    Share
  • বর্খেসের কবিতা : হোর্হে লুইস বর্খেস
    translated from English to Bangla by স্বপন ভট্টাচার্য



    ‘পলিম্যাথ’ কথাটার বাংলা বহুবিদ্যাবিশারদ বললে চলে হয়ত, কিন্তু তাতে বোঝান মুশকিল হোর্হে লুইস বর্খেস (১৮৮৯-১৯৮৬)-কে ঠিক কোন অর্থে পলিম্যাথ বলে থাকে সারা সাহিত্যবিশ্ব। তাঁর পাঠ-পরিধির বিস্তৃতির নিদর্শন ছড়িয়ে রয়েছে ছোট গল্প, মেটা-ফিকশন, প্রবন্ধ এবং কবিতায়। পোস্ট মডার্নিস্ট সাহিত্যধারার একটি জঁরকে তিনি এককভাবে পুষ্ট করে গেছেন এবং পরবর্তী প্রজন্মকে যেভাবে তিনি প্রভাবিত করেছেন তার তুলনা বিরল। বলবার কথা এই যে, বর্খেসের ছোট গল্প, প্রবন্ধ এবং কবিতাকে একে অন্যের পরিপূরক বলে মনে হওয়া অস্বাভাবিক নয়। পাঠক জানেন, তাঁর প্রবন্ধ ফিকশনের মত, ফিকশন কবিতার মত এবং কবিতা কখনও ছোটগল্প, কখনও প্রবন্ধের আত্মাকে ধারণ করেছে। কবিতার অনুবাদে ফুটনোট জুড়লে তাঁর প্রতি সুবিচার হয় না জানি, তথাপি দ্বিধা রেখেও, দিলাম। তিনটি কবিতাই মূল স্পেনীয় এবং তাদের ইংরাজি অনুবাদ-এই দ্বিভাষিক পাঠ থেকে করা।

    দাবা

    এক

    প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ কোনা বরাবর খেলুড়েরা
    তাদের শ্লথ ঘুঁটিগুলো শাসনে রাখে। ছকখানা
    ভোর পর্যন্ত কড়া পরিধিতে বেঁধে রাখে তাদের,
    যেখানে দু’খানা রঙ একে অন্যের প্রতি ঘৃণা পুষে রাখে।

    যাদুকরী আনুগত্যের ভিতরে সঞ্চার করে
    অবয়বঃ হোমারের দুর্গ, নির্ভার অশ্ব,
    সশস্ত্র রানী, শেষতম রাজা, বঙ্কিম যাজক
    আর ঘাতক বোড়ের দল।

    খেলুড়েরা চলে যাবে,
    যখন সময় তাদের গিলে নেবে,
    অন্ত্যেষ্টি তখনও অসমাপ্ত নিশ্চিত।

    রণের এ আগুন প্রথমে পূবে জ্বলেছিল,
    এখন রঙ্গমঞ্চ সারা বিশ্ব জুড়ে
    এবং অন্যগুলোর মত, এ খেলারও শেষ নেই কোন।

    দুই

    দুর্বল রাজা, একবগগা যাজক, তিতিবিরক্ত
    রানী, সরলরৈখিক দুর্গ আর ধুর্ত বোড়ে
    কালো রাস্তা আর সাদা রাস্তা খুঁজে খুঁজে
    হয়রাণ হয়ে সশস্ত্র যুদ্ধে নেমেছে ।

    তাদের জানা নেই কেবল নির্বাচিত হাতই
    তাদের ভাগ্য গড়ে দিতে পারে
    তাদের জানা নেই অনড় কোন পেশি
    তাদের বাসনা আর চলা বেঁধে দিতে পারে।

    বিধাতা খেলুড়েকে চালায় এবং খেলুড়ে ঘুঁটিকে
    বিধাতার আড়ালে বসে আর এক বিধাতা কী যে বুনছে
    ধুলি ও সময়, স্বপ্ন ও মৃত্যুর শীতলতা নিয়ে?

    Ajedrez (Chess), 1960 (English translation by Luis Andrede)

    আদমের মোহজাল

    কোন বাগান কি সত্যিই ছিল, না কি বাগানের স্বপ্ন কেবল?
    বিচ্ছুরিত আলোর ভিতরে, আমি ছোটা থামিয়ে প্রশ্ন করেছি,
    নিজেকে প্রায় সান্ত্বনা দিয়ে, সত্যি কি কোন এক কালে
    এই আদমের, এখন হতশ্রী যে, একচ্ছত্র শাসন চলেছিল?

    হয়ত কেবল যাদুবিভ্রম নয় আমার ঈশ্বর
    স্বপ্নে দেখি যাকে। নির্মল স্বর্গলোক
    এখনই আমার স্মৃতিতে, ঝাপসা হয়ে এসেছে,
    কিন্তু আমি জানি ফুল ও প্রাচুর্যময় সেটা রয়েছে কোথাও,

    যদিও আমার অপেক্ষায় নয়। আমার জীবনভর শাস্তি
    এই নিরেট পৃথিবীর কেইন আর আবেল আর তাদের
    রক্তের ধারা দ্বন্দ্ব অজাচার; কোন ক্ষমা নেই আমার

    তবু, ভালবেসে ভরিয়ে দেবার, খাঁটি কোন সুখকে ছোঁয়ার
    অবসর যদি পেয়ে যাই- না হয় একটি দিনই সই-
    সজীব সে উদ্যান আমি অভিজ্ঞতায় চাই।

    Adam cast forth ( Adam Cast Forth), 1970 (English translation: Genia Gurarie)
    কেইন আর আবেলঃ বাইবেলের চরিত্র, আদম ও ইভের প্রথম দুই পুত্র। কেইন বড়, আবেল ছোট। ঈশ্বরের প্রীতি আবেলের ওপর তাই হিংসায় কেইন তাকে হত্যা করে। কেইন বাকি জীবন পালিয়ে বেড়ায়।

    ব্রাউনিং ভেবে নিলেন কবি হতে হবে

    লন্ডনের এই লাল গোলকধাঁধায় আমি বুঝতে পারি
    যে ডাকের টানে আমি সাড়া দিয়েছি
    সবচেয়ে অদ্ভুত সেটা, যদিও এটা ব্যতিরেকে,
    অন্য যে কোন ডাক, তা সে যেভাবেই হোক, অদ্ভুতই বটে।

    যেন জড়িবুটিওয়ালা আমি
    তরল পারদে
    খুঁজতে বেরিয়েছি দার্শনিকের পাথর
    রোজকার প্রতিটি শব্দকে-
    জুয়াড়ির চোট্টামি তাস, খুচরো পয়সাকে-
    নিহিত সমস্ত ম্যাজিক দেখাতে বাধ্য করব
    যা তাদেরই ছিল একদিন যখন থর ছিল একাধারে সোনা ও ঝলক
    বজ্রনির্ঘোষ এবং প্রার্থনা।

    আজকের বোলেচালে
    আমি, নিজের মত করে, অনন্তের কথা বলবঃ
    আমি বায়রনের মহিম প্রতিধ্বনিটির
    উপযুক্ত হয়ে উঠতে চাইব।
    এই ধুলোবালি যা আমাকে অনড় রাখবে
    আমার প্রণয়ভার রমণীর হাতে পড়ে গেলে,
    অথবা প্রত্যাখ্যাত হলে কখনো নিবেদনকালে,
    কবিতা তখন কেন্দ্রাতিগ স্বর্গের দশম বৃত্তটিকে ছোঁবে
    দুঃখকে দিয়ে আমি সঙ্গীত রচনা করাতে পারব
    পূর্ণস্রোতা নদীর মত কালগর্ভে প্রতিধ্বনি তুলে
    নিজেকে বিস্মৃত হয়ে বেঁচে থাকব আমি

    আমি সেই মুখ হব দেখেও অহরহ যাকে ভুলি
    আমি হব তেমন জুডাস বিশ্বাস হন্তারক
    ভার বহন করে যাওয়া যার পবিত্র দায়
    আমি হব মাটি ও জলার কালিবান,
    আমি হব বিদ্রোহী
    যে ভয় ছাড়া বা ভক্তি ছাড়া মরে
    আমি হব পলিক্রেটেস, যে বিস্ময়ে দেখবে
    ভাগ্য ফিরিয়ে দিয়েছে পরিচয়মোহর।
    আমার মিত্র হব আমি, আমকেই ঘৃণা করবে যে।

    ইস্পাহানী আমাকে দেবে রাতপাখি, আর রোম দেবে তরবারি
    মুখোশ, ব্যাথা, পুনরুত্থান
    আমার জীবনকে বুনবে এবং খুলে ফেলবে
    এবং কালে কালে আমি রবার্ট ব্রাউনিং হয়ে যাব।

    Brwoning resuelve ser poeta (Browning Resolves to be a Poet), 1969 (English translation: A.S. Kline)

    থরঃ নর্স মাইথোলজিতে বজ্রের দেবতা। Thursday নামটি নাকি এসেছে থর থেকে। Thunder কথাটিও এসেছে Thor’s Din অর্থাৎ তার হাতে ধরা বজ্র থেকে।

    কেন্দ্রাতিগ স্বর্গের দশম বৃত্তঃ দান্তের স্বর্গ ( প্যারাডিসো) ন’খানি বৃত্তে গড়া। দশম বৃত্ত অ্যারিস্টটল- টলেমির প্রকল্প , তথাকথিত স্থায়ী তারাদের জগৎ।

    পলিক্রেটেসঃ ঈসেস-এর পুত্র, সামোস এর শাসক( ৫৪০-৫২২ বি সি)। হেরোডেটাস-এর আখ্যানে পাওয়া যায় মিশরের ফারাও আমাসিস পলিক্রেটেসকে বলেছিলেন যা তিনি সবচেয়ে মূল্যবান মনে করেন তা ত্যাগ করতে- তাহলে ভাগ্য প্রতারণা করবে না।পলিক্রেটেস তার বহুমূল্য আংটি নদীতে বিসর্জন দেন। কয়েকদিন পরেই এক জেলে জালে পড়া মাছের ভেতর (শকুন্তলার অভিজ্ঞান স্মরণে আসতে পারে) তা দেখতে পেয়ে পলিক্রেটেসকে জানায়। এ কথা শুনে আমাসিস অবিলম্বে তার সঙ্গে বন্ধুত্ব অস্বীকার করে এই অনুমানে যে, এমন ভাগ্যবান লোক তার ঘোর বিপত্তির কারণ হয়ে হয়ে উঠতে পারে অচিরেই।

    কালিবানঃ উইলিয়াম শেক্সপিয়েরের ‘টেমপেস্ট’-এর চরিত্র। প্রসপেরোর দখল করা দ্বীপের সেই একমাত্র ভূমিপুত্র যাকে দাসে পরিণত করে প্রসপেরো আর তার কন্যা মিরান্ডা।



    অলংকরণ (Artwork) : উইকিপিডিয়া থেকে
  • মন্তব্য জমা দিন / Make a comment
  • (?)