• Parabaas
    Parabaas : পরবাস : বাংলা ভাষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতি
  • পরবাস | সংখ্যা ৮৬ | এপ্রিল ২০২২ | রম্যরচনা
    Share
  • সে : সমরেন্দ্র নারায়ণ রায়
    ১ | | | | | | | | | ১০



    আমি বললাম - নতুন জায়গা, না রে? আগে মনে হয় আসিনি

    সে বললো - তুই বড় বোকা রে। জায়গাটা কেন নতুন হবে, তুই-ই এখানে নতুন। এ দিগরের কিছুই তোকে চেনে না যে

    - বড্ড তক্কো করিস তুই

    - এই শোন, সবই যখন নতুন তখন নতুন একটা খেলা খেলা যাক, কি বলিস

    - ফের খেলা? বড় বেশী তোর জেতার লোভ, না রে?

    - শোন শোন, এইমাত্র খেলাটা মাথায় এসেছে, মন দিয়ে শোন। সোঁতা অনেক দূরে, দেখছিস তো? আর বালি ওই ওইখান অবধি ভিজে, ব্যস। চোরাবালি এদিকে আছে বলে মনে হয় না, থাকলে লোকে বলতো। আমি ছুটে পালাবো, আর তুই আমাকে ধরবি, ঠিক আছে তো? বাজি একটাই, আমার পায়ের দাগের ওপর তোকে পা ফেলতে হবে

    - তুই ভিজের ওপর দিয়ে ছুটবি তো? শুকনোয় তোর ছাপ তো এই হাওয়ায় ঘেঁটে যাবে রে!

    - আমি আমার যেমন খুশী পালাবো, তোর কি রে? তোর তো আমাকে ধরে ফেলা অভ্যেস আছেই

    আমি একটু ভেবে জিগ্যেস করলাম - তা হলে বাজিটা কি? তোকে যদি ধরে ফেলি তো?

    - এই ধ্যাৎ ! আমি পালালাম...

    পায়ের ছাপের ওপর মিলিয়ে পা ফেলা দুরূহ কাজ। অল্পক্ষণের মধ্যেই সে হয়ে গেলো উধাও।একবার ভিজে বালিতে, একবার শুকনোয় ছুটে। যেন তাড়া খাওয়া কোটরা হরিণটি। আর আমি চললাম কষ্টে পায়ের ছাপ মিলিয়ে, মনের মধ্যে

    "জহাঁ তেরা নকশ্-এ-কদম দেখতে হেঁ
    খয়াবাঁ খয়াবাঁ এরম দেখতে হেঁ..."

    একটু পরেই সব পরিষ্কার। বালি উড়িয়ে দুশমন হাওয়া সব দিয়েছে মিলিয়ে

    কি হবে?

    এদিক ওদিক তাকাচ্ছি। একবার বাঁওড়ের দিকে, একবার বীরের দিকে। সে যদি পথ হারিয়ে উল্টো দিকে হারিয়ে যায়?

    এগিয়ে যেতে যেতে অন্যমনস্ক হয়ে পড়েছিলাম। বালি একটা জায়গায় খুব ঝুরো, পা যাচ্ছিলো ডুবে। হঠাৎ নিঃশব্দে পিছন থেকে...

    - দুয়ো! দুয়ো! পারলি না তো

    ফেরার পথে দু'জনের সে কি নিশ্চিন্ত হাসি!


    অলংকরণ (Artwork) : দীপঙ্কর ঘোষ
  • ১ | | | | | | | | | ১০
  • মন্তব্য জমা দিন / Make a comment
  • (?)